রংপুর অঞ্চলকে গার্মেন্টস ও কৃষিভিত্তিক শিল্পাঞ্চল করার দাবি

রংপুর অঞ্চলকে গার্মেন্টস ও কৃষিভিত্তিক শিল্পাঞ্চল করার দাবি

রংপুর অঞ্চলকে গার্মেন্টস ও কৃষিভিত্তিক শিল্পাঞ্চল করার দাবি

এবার দাবি উঠে আসলো রংপুর অঞ্চলকে গার্মেন্টস এবং কৃষিভিত্তিক শিল্পাঞ্চল ঘোষণা করার।

রংপুর অঞ্চলকে গার্মেন্টস

দীর্ঘদিনের এই বঞ্চনা কিছু ত্রাণ ও ভাতা আর বছরে বছরে যে বাজেট বরাদ্দ দেওয়া হয় তাতে এ বঞ্চনা কোন ভাবেই ঘুঁচবে না বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞ ব্যাক্তি গণ । আঞ্চলিক এই বৈষম্য দূর করতে সহানুভূতি নয়, প্রয়োজন সরকারের দৃঢ় ও নৈতিক সমর্থন। তবেই দূর করা সম্ভব আঞ্চলিক এই বৈষম্য।

সামাজিক নিরাপত্তা-সহ সরকারের নানা ধরণের উন্নয়ন মূলক পদক্ষেপে এই সমাজের কিছু মানুষ ঘুরে দাঁড়াতে পাড়লেও পুরোপুরি ভাবে সাবলম্বী হওয়ার আগেই আবার এক নদী, বন্যা ও ভাঙন এসে পূর্নায় তাদের নিঃস্ব করে আগের থেকেও বেশি। এ সময় সামান্য কিছু ত্রাণ দিয়ে আপাতত তাদের প্রাণ বাঁচানো গেলেও মজবুত উন্নয়নে এর প্রভাব লক্ষ্য করা যায় না। একইভাবে প্রতিবছরে উন্নয়নের যে বাজেট আশে এই বাজেট অনুযায়ী উন্নয়নের কোন কাজেও দেখা যায় না।

মুক্তিযোদ্ধা ভাতা এবং অন্যান্য যেসব ভাতা আছে তা দিয়ে সাময়িক ভাবে সমস্যা সমাধান হবে। কিন্তু স্থায়ী বা দীর্ঘ প্রসারী কোন উন্নয়ন হবে না বলে জানান, বে-রোবির শিক্ষক আতিউর রহমান।

যুগের পর যুগ এইভাবেই চলে আসছে এই অঞ্চল তার পরেও অর্থনৈতিক দিক থেকে করুন অসহায়ত্বের শিকার এই অঞ্চল। তাই উন্নয়নের ধারা ফেরাতে দাবি উঠেছে গার্মেন্টস ও কৃষিভিত্তিক শিল্পাঞ্চল ঘোষণার। পোশাকভিত্তিক শিল্প বিকাশে যে সম্ভাবনার যুক্তি দিচ্ছেন ব্যবসায়ী নেতাগণ। তা হলো সস্তা শ্রম, কাঁচামালের অবাধ প্রাপ্যতা-সহ আরো নানা কারণ।

গার্মেন্টস বাংলাদেশের প্রধান অর্থনৈতিক পোশাক শিল্প আর সেই অর্থনৈতিক পোশাক শিল্প এখানে করা সম্ভব। এমনটাই জানিয়েছে রংপুর চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি এর প্রেসিডেন্ট, মোস্তফা সোহরাব।

প্রত্যেক অঞ্চলেই সমউন্নয়ন এবং সমবন্টনের ক্ষেত্রে সাংবিধানিক অধিকার নিশ্চিত করতে উদ্যোগী হবেন সরকার এমনটাই আশা এই অঞ্চলের বাসী মানুষের।

One Comment

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *